On 20th September, Kolkata saw a Mahamichil that was organized by Hokkolorob and Jadavpur university

On 17th September, as the acting VC of Jadavpur ordered, protesting students were molested and lathi charged by the Kolkata Police. While several were arrested, some were taken to the Hospital. Their only fault was –they were not unanimous with the decisions taken by the VC. The case has deeper undertones as the students protested against the molestation of a JU student during the cultural fiesta and her double molestation occurred mentally by two members of the so called independent committee set by the VC who asked her unparliamentary questions and kept harassing her. The acting VC is supposedly the “chosen one” of the State Government. Furthermore, Kolkata Police too, like a puppet had their say in the lines of the State. On 20th September, Kolkata saw a Mahamichil (massive rally of 80, 000 or more that was organized by Hokkolorob and Jadavpur university. (A nonpolitical group that is seeking justice).

hokkolorob Mahamichil In Jadavpur University

20th September পথে নামল Kolkata. আমার শহর দেখল উত্তাল যৌবন কাকে বলে, দেখল যৌবনের ঝড়ের সামনে light নেভানো নিকষ অন্ধকারের মত ফ্যাসিস্ট শক্তি বা সেই শক্তির মেশিনারী কেমন তাসের ঘরের মতন ভেঙ্গে যায়. সমুদ্রের উত্তাল ঢেউ..আছড়ে আছড়ে পড়ছিল… জনজোয়ার! বিপ্লবের একুল ওকুল দুকুল ছাপিয়ে..

মুশল ধারে বৃষ্টি..তুমুল বৃষ্টি … Hokkolorob যেন শোনালো Rainfall Sonata. হ্যাম্লিয়েনের বাঁশিঅলার মত এই যৌবন তখন নিয়ে এলো মেঘ উত্সবের দিনে দ্বিতীয় বসন্ত! Jadavpur মানেই তো আর্ট ,আর আর্ট মানেই তো চেতনা, conscious conscience. সেই conscience যেটা অথরিতারিয়ান রাষ্ট্রের কালো হাত ভেঙ্গে দেয়, গুড়িয়ে দেয়..!

hokkolorob jadavpur Mahamichil In Jadavpur University

কিন্তু এত কিছু কেন? ঝড় বোধয় এভাবেই আসে! বড়দের শক্ত রাজনীতি যখন বিষাক্ত ছোবল মারে Jadavpurer অন্দরমহলে, আতস কাঁচ দিয়ে বিচার করে তোমার আমার ধরন ধারণ: “কোলে শুয়ে , সিগারেট খেয়ে ” খোকা খুকুরা রাজনীতি করতে পারে না! একটা প্রশ্ন আসে- কেন ক্লাস আর জেন্ডার নিয়ে পলিটিক্স? আর কত? পুরুষতন্ত্রের ঝান্ডাকে কি তাহলে ডান্ডা দিয়ে বাঁচিয়ে রাখতে হয়?নাকি “সেকি জানিতনা আমি তারে কত জানি ???

শনিবার বেলা দুটো একাডেমীতে -যা হলো ত়া magic real! ঘুরে দেখালো শহর, ঘুরে দাড়ালো যাদবপুর. রাষ্ট্রর লাঠির,লাথির আর Dictatorshipr গুলিয়ে ফেলা অঙ্কটা দিব্ব্যি কষে দিল “হোক কলরব” মন্ত্রে দীক্ষিত যৌবন; কাউকে ১০০ টাকার বিরিয়ানি না খাইয়েই! পতাকাতন্ত্রকে দিব্য পেছনে ঠেলে, ক্রুদ্ধ আপামর “যৌবন” এলো: RainyDayতে রোদ্দুর হয়ে!

jadavpur university protest Mahamichil In Jadavpur University

Armchair Revolutionary totem লেগে আছে আমাদের রন্ধ্রে রন্ধ্রে!২০ সেপ্টেম্বর সব ভেঙ্গে দিল. দৃপ্ত কন্ঠ জানালো..”পথে এবার নাম সাথী..পথে হবে এ পথ চেনা..জনস্রোতে , নানান মতে, মনরথেরও ঠিকানা”…আসলে Apolitical বলে গণতন্ত্রে কিছু হয় না! যেমন বসে বসে..একটা পাখি এলো, একটা পাখি গেল গোনার সময় নেই কারো! এবার হয় কর নয় মর! ভেবেই দেখুন তো, “আমরা” “ওরা” ভেদ করেন বলে যাদের হরদম বদনাম করি, তাদের একার দোষ?আমরাই কি ছেলে, মেয়ে, সাহস, লজ্জা, এগুলো জেন্ডার রোল হিসেবে ভাগ করি নি? মরাল পুলিশ সেজে ঠিক ভুলের barricade ও গড়তে শিখেছি , তাহলে? Neutrality কোথায়? “Apolitical?” সেটাই বা কি?

আকাদেমি থেকে রাজ ভবন ..যাত্রা যতটাই লম্বা, তার গাম্ভীর্য ততটাই প্রবল!আর তেমনি এর নদীর যাত্রাপথে আপন বেগে যোগ দেওয়া অসংক্ষ্য শাখা প্রশাখা. এরা সেই “বহিরাগত” or Outsider তকমা পাওয়া প্রেসিডেন্সি’র “মাওবাদী”রা !! একজন রসিক ভাবেই প্রশ্ন করেন, JU’e প্রেমিকাকে বাচাতে যাওয়া মানে কি বহিরাগতর তকমা অর্জন করা? Simple হিসেব কষা বড়দের জটিল Political অঙ্ক!
আ মোলো! Uff দুধের ছানা সব…তোরা বরং “তোতাপাখি” হ, মগজ ধলাই কর ও করা. ওরে পাঁজি ছেলে, নষ্ট মেয়ে, আর দুষ্টু লোক, সবাই জানে সবাই বোঝে হীরক রানীর দেশে ” এরা যত বেশি জানে, তত কম মানে”. তাই রাষ্ট্রের Freedom of Expressionএর কন্ঠ রোধ করে দেওয়া কিছু গেঞ্জি পুলিশ, লাঠি পুলিশ, আর যেখানের যত খেলতে নেমে থমকে যাওয়া আব্ব্বুলিশ এর মত অতি Practical দাদা দিদিও Teachers Day পালন করা সেপ্টেম্বরএ শিখল কিছু!জয় “হোক কলরব!” শিখিয়ে দিলে, দেখিয়ে দিলে!

jadavpur university hokkolorob Mahamichil In Jadavpur University

জানে, এ শহর জানে এবং মানেও যে কলকাতা অনেকদিন রাজনৈতিক রং ছাড়া “মান” আর “হূশ” থাকা সাধারণ মানুষদের পথে নামতে দেখে নি! Atleast এত সংখ্যায় ! আঘাত যখন আসছে, পাল্টা আঘাত ফিরিয়ে দাও. দিলেন ২০ সেপ্টেম্বর-মর্মে. আর আমরা যারা সিরিয়ালের তামাশা ছেড়ে এসব বাপে খেদানো মায়ে তাড়ানো আপদদের “ইয়ে” তে গেলুম না, আমরাও Consolation গিফট পেলাম বাড়িতে বসে! আমাদের মধ্যমেধার মধ্যবিত্ত্যদের তো আবার পুলিশের ভয়! তাই Tips- “পুলিশ দেখলে জাপটে ধরে, গান সোনাব বিশ্রী সুরে!”

Candlelight Vigilর মোমবাতির আলোর স্নিগ্ধত়া না থাক, তার আভাটুকু ঘিরে আছে হোক কলরবের আঙ্গিনায়. সেই আলো নিভিয়ে দিক না রাষ্ট্র, তার আভা থাকবেই! অন্ধকারের উত্স হতে আলো আসবে. Symbolically, শহরের প্রাণ কেন্দ্রকে লক্ষ্য করা হলো আন্দোলনের স্পট হিসেবেই! একাডেমী: বাংলা culture’r আতুরঘর! দেখিয়ে দিল Jadavpur . স্তব্ধ হলো শহরের প্রাণ কেন্দ্র … দামাল ঢেউ এ! যেমন যৌবনের ঝড়ের দাপটে ফুল স্টপ হয় Robotic Indifference! কখনো টলমল পায়ে, কখনো খুড়িয়ে খুড়িয়ে হাটছিল conscienceটা . সেটাকে চাবুক মেরে জাগিয়ে দিল “লাঠির মুখে গানের সুর.”

আর এই শুরু..হোক, শুরু হোক. ঘুরে দেখার,ঘুরে দাড়াবার! কলরব হোক, একশ বারোর মাইনে থেকে “উত্তরণ” হোক, ফুলিশ কাকুদের, সরকার শিল্পায়নের নামে কুমিরছানা দেখাতে থাকুক, …কিন্তু, প্রতিবাদের নামে, Freedom of Expression’র নামে, গন্ধে, বর্ণে, বার বার কলরব হোক..রাজাকে যক্ষ পুরীর থেকে টেনে বার করে, বার বার নন্দিনী নামের উন্মত্ত যৌবনরা বলুক: বিদ্রোহ আর চুমুর দিব্ব্যি..Just Justice চাই!

 

By Adrita Dey Ghatak

Images: Hokkolorob Facebook